সিএসএস সিনট্যাক্স

এখন আমরা সিএসএস সিনট্যাক্স নিয়ে আলোচনা করবো । সিএসএস এর গঠনকে দুটি অংশে ভাগ করা যায় । এগুলো হচ্ছে;

  • সিলেক্টর
  • ডিকলারেশন

সিলেক্টরঃ সিলেক্টর মূলত এইচটিএমএল ট্যাগ, যেমন; body, p, h1, h2, h3, h4. h5, h6ইত্যাদি । সিলেক্টরের মাধ্যমে এইচটিএমএল ট্যাগকে সিলেক্ট করা হয় এবং পরবর্তীতে সেই সিলেক্টর নিয়ে কাজ করা হয় । পরবর্তী অধ্যায়সমূহে সিলেক্টর নিয়ে আরও বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে ।

ডিকলারেশনঃ সিলেক্টরের মাধ্যমে এইচটিএমএল ট্যাগকে সিলেক্ট করার পর ডিকলারেশন এর মাধ্যমে স্টাইল নির্ধারণ করা হয় । ডিকলারেশন এর দুটি অংশ থাকেঃ এগুলো হচ্ছে, Property এবং Value.

Property এবং Value এর মাঝে কোলন (:) চিহ্ন ব্যবহার করা হয় । একটি সিএসএস ফাইলের গঠন হবে;

Selector {Property: Value}

উদাহরণ;

p {text-align:center; color:black; font-family:arial; }
h1 {color: red; text-align: center; }

*সিএসএস ফাইল .css এক্সটেনশন দিয়ে সেভ করতে হয় । যেমন; style.css

*সিএসএস লেখার জন্য দ্বিতীয় বন্ধনী ব্যবহার করা হয় । যেমন; h1 {font-size: 36px; }

*একাধিক ডিকলারেশন এর জন্য সেমিকোলন (;) ব্যবহার করতে হয় । যেমন; p {color: red; font-family: Times New Roman; }

সিএসএস কমেন্ট

কোড প্রকাশ করার জন্য কমেন্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । আমরা কমেন্ট ব্যবহার করে সহজেই বুঝতে পারি যে কোন কোড কি কারনে ব্যবহার করা হয়েছে । এতে, পরিবর্তিতে কোড পরিবর্তন করতে সুবিধা হয় । কমেন্ট ব্রাউজারে প্রদর্শন হয় না । এছাড়াও আপনারা কমেন্ট সম্পর্কে এইচটিএমএল টিউটোরিয়াল এ জেনেছেন ।

সিএসএস কমেন্ট লেখার জন্য /* */ ব্যবহার করা হয় । যেমন;

/* This is Comment */
p {text-align:center; color:black; font-family:arial; }
h1 {color: red; text-align: center; }

আপনি আপনাদের সুবিধার্থে কোডটুকু লিখে দিয়েছি । আপনারা এখান থেকে কোড সরাসরি কপি না করে, কোডটুকু দেখে নিজে নিজে লিখবেন তাহলে ভালোভাবে শিখতে পারবেন । আর আপনার কোডিং এর দক্ষতা বাড়াতে নিজে নিজে লেখার কোন বিকল্প নেই বলে আমি মনে করি ।

Series Navigation<< সিএসএস কি , কেন , কিভাবে ?সিএসএস সিলেক্টর >>

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *