ওয়েব ডেভেলপারদের জন্য প্রয়োজনীয় ১০ টি টুলস

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি সবাই ভাল আছেন? আমি আলহামদুলিল্লাহ্‌ ভাল আছি ।আমার আজকের আলোচনার বিষয় ওয়েব ডেভেলপারদের জন্য প্রয়োজনীয় ১০ টি টুলস ।   ইন্টারনেট এ ওয়েব ডিজাইনার এবং ডেভেলপারদের জন্য শত শত টুল রয়েছে । এসব টুলস ব্যবহার করার ফলে আমরা একটি কঠিন কাজ সহজে শেষ করতে পারি । আজ আমি আপনাদের কাছে কিছু টুলস শেয়ার করবো যা একজন ওয়েব ডেভেলপারকে এসব টুলস ব্যবহার না করলেই নয় । এসব  টুলস ওয়েব ডেভেলপারদের জন্য খুবই প্রয়োজন । যারা এসব টুল সম্পর্কে না জানেন তাঁরা সংগ্রহ করে রাখতে পাড়েন । পরবর্তীতে হয়ত একদিন আপনার কাজে আসবে । আবার অনেকে আছেন হয়ত এসব টুলস খুঁজে বেড়াচ্ছেন । এছাড়া, যারা নতুন ওয়েব ডিজাইন কিংবা ডেভেলপমেন্ট শিখেছেন তাঁদের জন্য আমার আজকের লেখাটি কাজে আসবে বলে আমি মনে করি । শুরু করার আগে আরেকটা কথা বলে রাখি যদি আজকের টিউটোরিয়ালটি ভাল লাগে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না । যাইহোক, কথা না বাড়িয়ে এবার আমরা মূল আলোচনায় আসি ।

চলুন একটু দেখি আজ কি কি টুলস আপনাদের জন্য থাকছে;

  • Icon Finder
  • Place Hold
  • Website speed test
  • Subtle Patterns
  • Font Comparer
  • CSS Minifier
  • Unminify JS, CSS and HTML Code
  • FavIcon Generator
  • Browsershots
  • WhatTheFont

এবার আমরা এসব টুলস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো । অর্থাৎ, টুল সমূহ কোনটি কি কাজ করে আমরা এখন জানবো;

Icon Finder

যারা ওয়েব ডিজাইন কিংবা ডেভেলপমেন্ট এ কাজ করেন তাঁদের কাজ করার সময় নানা রকম আইকন প্রয়োজন হয় । তাঁদের এ সমস্যা দূর করতে Icon Finder টুলটি ব্যবহার করা যেতে পারে । এখানে, আপনি বিভিন্ন পিক্সেলের আইকন পাবেন । এছাড়া, আপনি চাইলে এখান থেকে পেইড আইকন নিতে পাড়েন । এখানে রয়েছে ৪৭৫,০০০ এর বেশী আইকন! সুতরাং, এই টুল ব্যবহার করলে আইকন নিয়ে আপনাকে আর কোন চিন্তা-ই করতে হবে না । আপনি শুধু আইকনের নাম লিখে সার্চ করবেন ।

sshot-1

Icon Finder টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Place Hold

ওয়েবসাইট তৈরি করার সময় আমরা অনেক সময় বিজ্ঞাপনের জন্য জায়গা রাখি । সাময়িকভাবে, এসব স্থানে আমরা নানা রকম ইমেজ ব্যবহার করি রাখি । এসব ইমেজ আমাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ফটোশপ দিয়ে বিভিন্ন পিক্সেল এ রুপান্তর করে ব্যবহার করতে হয় । এসব সমস্যা-সমাধানের জন্য আপনি ব্যবহার করতে পাড়েন Image Place Holder । শুধু বিজ্ঞানপনের জায়গায় নয়, আপনি ওয়েবসাইটের যেকোনো স্থানে এটা ব্যবহার করতে পাড়েন । এটা ব্যবহার করলে আপনাকে ফটোশপ এ নানারকম সাইজের ইমেজ তৈরি করে ব্যবহার করতে হবে না । আপনি শুধু Height আর Width লিখে দিবেন ।

যেমন; আপনি চাচ্ছেন ৬০০x২০০ পিক্সেলের ইমেজ, এখন আপনার ওয়েবসাইটের যেখানে ইমেজ দরকার সেখানে আপনি শুধু নিচের কোডটুকু লিখবেন;

<img src="http://placehold.it/600x200">

তাহলে নিচের মত একটা ইমেজ আপনার জন্য অটোম্যাটিক জেনারেট হয়ে যাবে;

600x200

Place Hod টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Website speed test

এই টুলের নাম শুনেই হয়ত আপনারা এর কাজ সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন । আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলেন । এখন ওয়েবসাইটটি কত স্পীড এ চলছে তা আপনি কিভাবে বুঝবেন? তাই, আপনি ব্যবহার করবেন Website speed test টুল ।

sshot-8

Website speed test টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Subtle Patterns

প্যাটার্ন ওয়েবসাইটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ । এখন প্রায় প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট এ প্যাটার্ন ব্যবহার করা হয় । অনেকে ফটোশপ এ প্যাটার্ন তৈরি করে ব্যবহার করেন । তবে, আপনি যদি প্যাটার্ন তৈরি করতে না পাড়েন তাহলে Subtle Patterns ব্যবহার করতে পাড়েন । এখানে, আপনি প্রায় 400 টি প্যাটার্ন পাবেন ।sshot-2

Subtle Patterns টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Font Comparer

কিছু ওয়েবসাইট এ ফন্ট ব্যবহার করার সময় কোন ফন্ট ব্যবহার করবেন – এটা নিয়ে আমরা প্রায়ই দ্বিধায় পড়ে যায় । এই সমস্যার সমধান দিবে Font Comparer টুল । এই টুল ব্যবহার করে একটি ওয়ার্ড বিভিন্ন ফন্ট এ কেমন দেখা যাবে তা জানতে পারবেন ।

sshot-7

Font Comparer টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

CSS Minifier

সিএসএস এর ফাইল সাইজ কমিয়ে ফেলতে এবং ওয়েবসাইট এর লোডিং  স্পীড বাড়াতে সিএসএস মিনিফাই করা হয় । সিএসএস ফিনিফাই করলে সিএসএস ফাইল এ ব্যবহৃত অপ্রয়োজনীয় স্পেস মুছে যায় । সাধারণ সিএসএস এবং মিনিফাইড সিএসএস এর পার্থক্য নিচের স্ক্রিনশট এ দেখুন;

sshot-3

CSS Minify টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Unminify JS, CSS and HTML Code

এতক্ষন আমি সিএসএস মিনফাই করার সুবিধা নিয়ে বললাম এখন ভাবছেন আমি কেন সিএসএস আনমিনিফাই করার কথা বলছি? তাহলে শুনুন, সিএসএস ফাইলকে মিনিফাই করবেন ভাল কথা । কিন্তু, আপনার যদি সিএসএস ফাইলটি কখন সম্পাদনা (Edit) করার প্রয়োজন হয় তখন কি করবেন? তখন আপনি আনমিনিফাই করে তারপর সম্পাদন করবেন । এতে, আপনার কাজ সহজ হবে । Unminify JS, CSS and HTML Code টুল ব্যবহার করে আপনি শুধু সিএসএস ফাইল নয়, এইচটিএমএল এবং জাভাস্ক্রিপ্ট ফাইল আনমিনিফাই করতে পারবেন ।

Unminify JS, CSS and HTML Code টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

FavIcon Generator

ফেভিকন কি? কেন ব্যবহার করা হয় টা আমরা মুটামুটি সবাই জানি । ফেভিকন ওয়েব সাইটের একটি অপরিহার্য উপাদান । ফেভিকন ছাড়া ওয়েব সাইট অসম্পূর্ণ থেকে যায় । তাই, ফেভিকন ব্যবহার করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ । FavIcon Generator টুল ব্যবহার করে আপনি সহজেই ফেভিকন জেনারেট করতে পাড়েন । কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস এ ফেভিকন ব্যবহার করবেন তা জানতে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ফেভিকন যোগ করুন আরও সহজে লেখাটি পড়তে পারেন ।

sshot-4

FavIcon Generator টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

Browsershots

একটি ওয়েবসাইট অথবা থিম তৈরি করার পর ওয়েবসাইট/থিম টি সকল ব্রাউজার এ সাপোর্ট করবে কি না – এটা আমরা অনেক সময় চিন্তিত থাকি । এজন্য আমরা ওয়েবসাইট/থিম তৈরি করার পর তা বিভিন্ন ব্রাউজারে টেস্ট করি । কিন্তু, এটা অনেকের কাছে ঝামেলার কাজ । কেননা, আপনি কয়টি ব্রাউজারে তা পরীক্ষা করতে পারবেন? আপনার কম্পিউটার এ কি সব ব্রাউজার ইন্সটল করা আছে?

এজন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন Browsershots টুল ।

sshot-5

Browsershots টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

WhatTheFont

যখন মার্কেট প্লেস এ কাজ করা হয় তখন বায়ার একটি ফটো/লোগো দিয়ে বলে দেয়, “এই ফন্ট দিয়ে ওয়েবসাইটটি ডিজাইন করবেন?” আপনার যদি ফন্ট এর নাম না জানা থাকে তাহলে কি করবেন? এ সমস্যার সমাধান করার জন্য WhatTheFont টুল ব্যবহার করবেন । এখানে আপনি শুধু একটি ইমেজ/লোগো আপলোড করলেই ইমেজ/লোগো এ কোন ফন্ট ব্যবহার করা হয়েছে তা জানতে পারবেন ।

sshot-6

WhatTheFont টুল ব্যবহার করতে এখানে ক্লিক করুন ।

 

আজ আর নয়, আশা করি এসব টুলস সবার কাজে আসবে । ভাল লাগলে কমেন্ট করবেন । যদি আপনাদের কাছে আরও কোন টুলস জানা থাকে তাহলে জানাতে ভুলবেন না । টিউটোরিয়ালটি সংরক্ষণ করে রাখতে প্রিয় টিউন এ যোগ করতে পারেন ।

আমার সাথে ফেইসবুক এ যোগাযোগ করতে এখানে ক্লিক করুন ।

ধন্যবাদ, ভাল থাকবেন সবাই । আল্লাহ্‌ হাফেজ ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *